fb ytu fbs Twitter

Please Wait...

Message From Principal

একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ভিশন-৪১ অর্জনের লক্ষ্যে পর্যটন নগরী কক্সবাজারের সমুদ্র জনপদের রম্যভূমি রামুতে ১৯৮৯ সালে প্রতিষ্ঠিত রামু সরকারি কলেজ। প্রতিষ্ঠার পর থেকে একাডেমিক সুশিক্ষা, নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলার ফলে ইর্শনীয় ফলাফল অর্জনে অবদান রেখে চলেছে।
রামু কলেজ একটি শিক্ষিত, দক্ষ, মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন দেশ প্রেমিক অসাম্প্রদায়িক ও সৃজনশীল প্রজন্ম-গঠনে, শিক্ষা, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অঙ্গণে পদচারণায় মুখরিত ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। 
বিদ্যানুরাগী, নিঃস্বার্থবান, ত্যাগী মানুষের শ্রম, মেধা, সময়, ভূমি ও যারা নগদ অর্থ প্রদানের মাধ্যমে শিক্ষা ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়া রামু উপজেলাকে সমৃদ্ধ করেছেন তাঁদেরকে জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা ও সালাম। প্রতিষ্ঠালগ্নে যেখানে ছাত্র-ছাত্রী ছিল ২০০ জন এবং শিক্ষক কর্মচারী ছিল ১২ জন; সেখানে বর্তমানে ৪,০০০ ছাত্র-ছাত্রী এবং ৫৬ জন শিক্ষক-কর্মচারী সম্মিলিতভাবে রামু সরকারি কলেজ উচ্চ শিক্ষায় জাতীয়  ধারার সাথে সংযুক্ত হয়েছে। 
বর্তমানে এ কলেজে অর্থনীতি, ব্যবস্থাপনা ও হিসাব বিজ্ঞান বিভাগে অনার্স কোর্স, ডিগ্রী (পাস) কোর্স, এইচ.এস.সি (সাধারন), এইচ.এস.সি. (ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা) বিভাগে শিক্ষার্থীরা অধ্যয়নরত। 
শিক্ষা অর্জনের পাশাপাশি এ কলেজে রেডক্রিসেন্ট, রোভার স্কাউট ও বিএনসিসি (সেনা শাখা)’র কার্যক্রম অব্যাহত আছে। বার্ষিক ক্রীড়া, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতা, জাতীয় দিবস উদযাপন, নিয়মিত বিতর্ক প্রতিযোগীতা, বর্ষবরণ, ঈদ উৎসব পালন, সমৃদ্ধ বিজ্ঞানাগারে রুটিন কার্যক্রম, লাইব্রেরি ও সেমিনার কার্যক্রম, ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক-কর্মচারী, পরিচালনা পর্ষদ মিলে বার্ষিক বনভোজন ও শিক্ষা সফর কার্যক্রম, শেখ রাসেল কমপিউটার ল্যাবে নিয়মিত প্রশিক্ষণ, বার্ষিক স্বরণিকা, বিশেষ পত্রিকা/ক্রোড়পত্র ও দেয়ালিকা প্রকাশ কার্যক্রম ইত্যাদি বস্তুনিষ্ঠ বৈশিষ্ট্যে ও বৈচিত্রে সমৃদ্ধ ও প্রশস্ত রামু সরকারি কলেজ পরিবার। 
সময়ের নিথর, নিস্তব্দ, শিক্ষার আলো বঞ্চিত রামুর জনপদ। সেখানে এখন উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত জনপদের ভারে, কর্মে, পরিচিতিতে গৌরব উজ্জ্বল এক ও অনন্য শিক্ষা লাভের প্রতিষ্ঠান রামু সরকারি কলেজ। 
যেখানে নেই নষ্ট রাজনীতি, দলাদলি, ভর্তি বাণিজ্য, নেই ধুমপান, স্থানীয় বিতর্ক। আছে শুধু জ্ঞানার্জন, সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত এক টানা শ্রেণিকক্ষে পাঠদান, পায়ের নিঃশব্দ আওয়াজ, ছাত্র-শিক্ষক সু-সম্পর্ক, ছাত্র-শিক্ষক অভিভাবক, কখনো শাসক, অথচ স্নেহ সোহাগের পংক্তি মাখা টই টুম্বুরি, প্রীতি স্নিগ্ধ সম্পর্ক। যেখানে স্বপ্ন দেখে শিক্ষার্থীরা শিক্ষা, মানব কল্যাণ, দেশ প্রেমের মহান দীক্ষা অর্জনের। সময়ের দীর্ঘতায়, দাবীতে সংযোজন হতে যাচ্ছে ওয়াই-ফাই কার্যক্রম। 
আমি এ কার্যক্রমের গর্বিত অংশীদার এবং এ কার্যক্রম ও কলেজ পরিবারের সাফল্য কামনা করছি। 





মোঃ আবদুল হক
অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত)
রামু সরকারি কলেজ
রামু, কক্সবাজার